উচ্চ শিক্ষা প্রস্তুতি - ব্যাচেলর ডিগ্রি



প্রিয় উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার্থিবৃন্দ, আশা করি সবাই সুস্থ আছ। করোনা ভাইরাসের কারনে, তোমাদের এইচএসসি পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। পরিস্থিতির উন্নতি না হলে সেপ্টেম্বরের আগেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোর খোলার সম্ভাবনা নেই। তোমাদের লাইফের একটা গুরুত্বপুর্ন সময়ে এমন ছন্দ-পতন। আবার তোমাদের মধ্যে অনেকেই এইচএসসির পর দেশের বাইরে পড়তে যেতে চাও। তাদের উদ্দেশ্যে কিছু পরামর্শ।

ব্যাচেলরের জন্য দেশের বাইরে স্কলারশিপসহ অনেক দেশেই পড়তে যাওয়া যায় যেমন: জাপানের মনবুশো স্কলারশিপ, কোরিয়ার কেজিএসপি, চায়না, তুরস্ক, হাংগেরি, ইন্ডিয়ার সরকারি স্কলারশিপসহ অনেক দেশ আছে। করোনা ভাইরাসে সামনে বছরে এসব সরকারি স্কলারশিপের সংখ্যা হ্রাসের সম্ভাবনা আছে। অন্যান্য দেশের সরকারি স্কলারশিপের নোটিশের জন্য বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট mofa.gov.bd এ নোটিশ সেকশনের আন্ডারে স্কলারশিপ পেইজে নিয়মিত খোঁজ রেখো যেন সার্কুলার আসলে দেখতে পার।

স্কলারশিপের প্ল্যান যারা করে রেখেছ ভাল করেছ, কিন্ত বুদ্ধিমানেরা প্ল্যান-A করার সাথে সাথে ব্যাকাপ হিসেবে প্ল্যান-B করে রাখে। প্ল্যান-B হিসেবে জার্মানিতে ব্যাচেলর করার প্ল্যান করতে পার। জার্মানিতে ব্যাচেলর অবশ্য জার্মান ভাষায় হলেও, টিউশন ফি না থাকায় অনেকের জন্য এই প্ল্যানটা সাধ্যের মাঝে হতে পারে। লক-ডাউনে ঘরে বসে থাকার সময়টা ইউটিউবে জার্মান ভাষা শিক্ষার জন্য ব্যয় করতে পার। এছাড়া মালেয়শিয়ার কিছু ইউনিভার্সিটিতে স্বল্প খরচে ব্যাচেলর করা যায়, মালেয়শিয়াকেও প্ল্যান-বি হিসেবে রাখতে পারো। তবে যাদের আর্থিক ব্যাকগ্রাউন্ড অনেক ভালো, সম্পুর্ন নিজ খরচে দেশের বাইরে ব্যাচেলর পড়তে যেতে চাও তাদেরকে কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, ইউকের মত দেশগুলো বেশি নিতে চাইবে। কারন এই দেশগুলোর করোনা পরবর্তি অর্থনীতির মন্দাভাব কাটাতে নিজ খরচে পড়তে আসা ছাত্র-ছাত্রিদের মোটা অংকের টিউশন ফি এক্ষেত্রে অনেকটাই সাহায্য করবে। তাই নিজ খরচে পড়তে চাইলে এখন থেকেই পরিকল্পনা করা উচিত। ইউনিভার্সিটির লিস্ট সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র হাতের কাছে প্রস্তুত রাখা উচিত যেন পরিস্থিতি ঠিক হবার পর পরই আবেদন করতে পার। For details: http://www.pbscu.ca/under-graduate.html আরেকটা বিষয় হলো করোনার জন্য IELTS এর সেন্টারগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তোমরা অনেকে এক্সাম দিতে পারছ না। আর করোনাকালীন সময়ে অনলাইনে ঘরে বসে Indicator test (www.ieltsindicator.com) টেস্টও দেয়া যাচ্ছে যেটা অনেক ইউনিভার্সিটি IELTS এর সাময়িক বিকল্প হিসেবে গ্রহন করছে। তবে সতর্কবানী হলো সব ইউনিভার্সিটি indicator test গ্রহন নাও করতে পারে। তাই যে ভার্সিটিতে এপ্লাই করবে সেটার ওয়েবসাইটে এডমিশন রিকূয়ারমেন্ট সেকশন ভালো করে পড়ে দেখবে এসব টেস্ট গ্রহন করছে কিনা। সবাই সুস্থ থাকো এই প্রত্যাশা করি। © Md Nazmul Hasan PhD researcher, University of British Columbia, Vancouver, Canada

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।