একটি চশমা কথন (জার্মানিতে চশমা নেবার কাহিনী)



অনেকদিন ধরেই চশমা পড়ি... রেগুলার পড়া হয়না, তবে ক্লাসে গেলে পড়ি, কারন দূরের লেখা দেখতে একটু প্রবলেম হয়। এতদিন ধরে - 1 ছিলো পাওয়ার। জার্মানী আসার আগে 6-7 টা চশমা বানিয়ে নিয়ে আসি কারণ জার্মানী তে নাকি একটা সাধারণ মানের চশমা বানাতেও 200 ইউরো প্লাস খরচ হয়ে যায়, যেটা বাংলা মুদ্রায় 20 হাজার এর কাছাকাছি। এতদিন ভালই ছিল, তবে এই semester থেকে আমাদের ফেস টু ফেস ক্লাস গুলা একটু বড় রুমে হয়, ক্লাসে বসে মনে হলো আমার গ্লাসের পাওয়ার বাড়াতে হবে... বড় ভাইয়ের পরামর্শে গেলাম optik shop. যেয়ে গুগল translator দিয়ে বুঝালাম আমার গ্লাসের পাওয়ার adjust করতে হবে, দোকানি আমার চশমা নিয়ে গেলো ভিতরে, কিছুক্ষণ পরে এসে বললো - 1. আমি বললাম আমিতো জানি এটা - 1। আমার চোখের পাওয়ার কত সেটা জানতে চাই, উনি বললো এটা তো আমরা করি না। তো কে করে? একজন কে suggest করলো, গেলাম ডক্টরের কাছে... যখন সিরিয়াল আসলো যাওয়ার পর উনিও বললো এটা তো আমার কাজ না, উনি আবার suggest করলো আরেকজনকে.. গেলাম ওখানে, যেয়ে দেখি ওই ডক্টরের practice শেষ, উনি অন্য কোথাও শিফট হয়েছেন, গেলাম ওখানে... যেয়ে ওনাকে সব খুলে বললাম, সে বললো এটা তো আমরা করি না... বললো optik shop এর লোক হয়তো তোমার ভাষা বুঝতে পারেনি তাই এরকম হয়েছে। চশমার দোকানেই আবার যেতে বললো, গেলাম। ডক্টর কিছু লিখে দিয়েছিলো, সেটা দেখালাম। তারপর আমাকে নিয়ে রুমে গেলো, ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে চেক করলো, ওই তো লেন্স পড়িয়ে ABCD পড়তে বলে যে😛 পরে বললো - 1.25। বললাম ফ্রেম আমার, লেন্স আপনার, কতো পড়বে? উনি বললেন 120 ইউরো । আমি বললাম ওকে আমি আসি। অন্য দোকানে যেয়ে Auto-refractor machine এ চেক করলাম, ওখানে আসলো - 3.something। আকাশ থেকে পড়লাম, অত পার্থক্য কিভাবে হয়... আমি বললাম আসি। গেলাম অন্য দোকানে, ওখানে মেশিনে আসলো - 2.something। আমি বললাম এক এক জায়গায় এক একরকম, এটার কারন কি?? উনি বললো মেশিনে accurate আসে না, কাছাকাছি একটা আসে। মনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লো। তার মানে এই কাছাকাছি রেজাল্ট দিয়ে চশমা বানায় দিতে চেয়েছিলো , আর এই কাছাকাছি মানের ও ঠিক ঠিকানা নাই, এক এক মেশিনে এক এক রকম? পরে বললো, ডক্টর আছে ওদের, উনি manually check করবেন, ওই যে লেন্স লাগিয়ে দূরের abcd পড়তে বলে যে... তো এখানে উনি কয়েকটা লেন্স পড়ালেন শেষ পর্যন্ত একটা ঠিক হলো যেটা তে সবথেকে ভালো দেখি... পাওয়ার জানতে চাইলাম, বললো - 2.75 । আবার আকাশ থেকে পড়লাম, ম্যানুয়াল সিস্টেমে ও মিল নাই। মাথা চক্কর দিয়ে উঠলো 😁, বললাম আসি... একটু বাহিরে থেকে বাতাস খেয়ে আবার ভিতরে ঢুকলাম.. বললাম চশমা বানান।

NB:আমার লেখার উদ্দেশ্য হলো, আপনাদের যাদের চশমা পড়া লাগে, দয়া করে দেশ থেকে ভালো করে পাওয়ার check করবেন আর ভালো দেখে কয়েকটা চশমা সাথে নিয়ে আসবেন😛😛 এই লেখা পড়ার পরে কোন প্রশ্ন থাকলে বা মতামত দিতে চাইলে অথবা কাউকে ট্যাগ করতে চাইলে আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ থেকে করতে পারেন।


লেখক Moin Rohman

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।