এক নজরে স্কলারশিপঃ কি, কেন, কিভাবে ও কাদের জন্য?



লিখেছেনঃ ইকবাল তুহিন



স্কলারশিপ নিয়ে আমাদের অনেকের ভুল ধারণা ও বিভ্রান্তি রয়েছে। তাই স্কলারশিপ কি, কেন দেওয়া হয়, কাদের দেওয়া হয়, কিভাবে দেওয়া হয় তা আমাদের জানা দরকার। জার্মানিতে স্কলারশিপ পাওয়া বেশ কঠিন হলেও যেহেতু জার্মানিতে বেশি ভাগ কোর্সে টিউশন ফি দিতে হয়না তাই এটা চিন্তা করলে এক প্রকার স্কলারশিপের মতোই!


স্কলারশিপ কি?


স্কলারশিপ একজন শিক্ষার্থীকে তার শিক্ষা আরও এগিয়ে নিতে আর্থিক পুরস্কার। স্কলারশিপ প্রদান করা হয় বিভিন্ন মানদণ্ডের উপর ভিত্তি করে, যা সাধারণত স্কলারশিপ দাতা বা প্রতিষ্ঠাতার মান এবং উদ্দেশ্যগুলি প্রতিফলিত করে। স্কলারশিপের অর্থ ফেরত দেওয়া প্রয়োজন হয় না।


স্কলারশিপ কেন দেওয়া হয়?


স্কলারশিপ বিভিন্ন কারণে দেওয়া হয়ে থাকে। ডেভলপমেন্ট এসিস্টেন্ট, সফট পাওয়ার বৃদ্ধি, নারী ক্ষমতায়, একাডেমিক কার্যক্রমের গ্রোবাল ব্র্যান্ডিং/ প্রমোশন আর দ্বিপক্ষিত সম্পর্ক বাড়ানোর জন্য সাধারণত কোন দেশ স্কলারশিপ দিয়ে থাকে।


স্কলারশিপ কাদের দেওয়া হয়?


স্কলারশিপ দেওয়াই হয় যারা এক্সট্রা অর্ডিনারি স্টুডেন্ট তাদের।তবে স্কলারশিপ আসলে একটা প্যাকেজের মত যেখানে একাডেমিক রেজাল্টের বাহিরেও বিভিন্ন বিষয় দেখা হয়। আপনার একাডেমিক রেজাল্ট কিছুটা কম হলে আপনার এক্সটাক্যারিকুলার এক্টিভিটিজ, ভাষা দক্ষতা ইত্যাদি দিয়ে তা অনেক সময়ই কাভার করা যায়। তাছাড়া যাদের শুধুমাত্র ভালো রেজাল্ট বা একাডেমিক প্রোফাইল আছে কিন্তু তাকে দ্বারা সমাজের বা দেশের কিছু হবেনা তাদের আসলে জার্মানিতে স্কলারশিপ পাবার সম্ভাবনা কম। এই মোটিভেশন আর পোর্টফোলিও তুলে ধরবে আপনার মোটিভেশন লেটার আর আগে সামাজিক কাজের অভিজ্ঞতা।


স্কলারশিপের সাধারণ রিকোয়ামেন্ট কি?


এক এক স্কলারশিপের রিকোয়ামেন্ট এক এক রকম হতে পারে। তবে সাধারণত একাডেমিক এচিভমেন্ট, সামাজিক কন্ট্রিবিউশন, সামাজিক কমিটমেন্ট, প্রফেশনাল অভিজ্ঞতা ও ভাষা দক্ষতা অন্যতম।

সিজিপিএ ৩.৫+

IELTS 6.5+

রিলিভেন্ট জবের অভিজ্ঞতা

সামাজিক কর্মকান্ড

পাবলিকেশন্স

**নিদিষ্ট করে বলা কঠিন যেহেতু স্কলারশিপ ভেদে রিকোয়ামেন্ট ভিন্ন হতে পারে।


কি ভাবে স্কলারশিপের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করবেন?


এখন থেকেই সাধারণ রিকোয়ামেন্ট সেকশনে বর্ণিত বিষয় গুলোর প্রস্তুতি শুরু করুন। এই নিয়ে আমাদের গ্ৰুপের ফাইল সেকশনে বেশ কিছু ফাইল আছে সেগুলো দেখে নিতে পারেন।


জার্মানিতে স্কলারশিপের হালচাল:


জার্মানিতে বিভিন্ন ধরণের স্কলারশিপ আছে তবে সাধারণত জার্মানির স্কলারশিপ গুলো অন্য দেশের তুলনায় বেশ কঠিন পাওয়া। ব্যাচেলর লেভেলে ফুল স্কলারশিপের সুযোগ নাই বললেই চলে। মাস্টার্স প্রোগ্রামে DAAD & Erasmus Mundus স্কলারশিপ আছে। DAAD স্কলারশিপ পেতে হলে আপনাকে রিলিভেন্ট ফিল্ডে ২ বছরে জবের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। আর Erasmus Mundus স্কলারশিপে জব অভিজ্ঞতার দরকার নাই তবে স্কলারশিপ সাধারণত ইউরোপের কয়েক দেশে মিলে হয়ে থাকে। পিএইচডি প্রোগ্রাম সাধারণত ফান্ডেড হয়ে থাকে।

কয়েকটি অনুরোধ: গ্রুপে এড হওয়ার পরপরই কিছু না জেনে অনেক প্রশ্ন করেন যেটা আসলে খুব সুন্দর উপায় নয়।গ্ৰুপে এড হয়ে আপনার প্রথমে উচিত গ্ৰুপের নীতিমালা দেখে নেওয়া। দ্বিতীয় কাজ হওয়া উচিত গ্ৰুপের ফাইল সেকশন ঘুরে আপনার জন্য দরকারী ফাইলগুলো পড়ে নিজের জার্মানিতে পড়াশুনার নিয়ে জ্ঞান বাড়িয়ে নেওয়া।


ছবিঃ অনলাইন


©️এই লেখার মেধাস্বত্ব শুধুমাত্র লেখকের এর জন্য সংরক্ষিত।



Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।