কোন কোন ডকুমেন্টস কোরিয়ার করতে হবে

লিখেছেনঃ আবরার ফাহিম


কি ওয়ার্ডঃ সারটীফাইড কপি -> নোটারী, এমব্যাসি থেকে সত্যায়িত করা কপি।


বিঃদ্রঃ ইউনিভার্সিটি যা কিছুর হারডকপি যেভাবে চাইবে (যেমনঃ রিকোমেন্ডেশন লেটার সিল করা খামে) ইউনিএসিস্টকে সে সব হারডকপি ঠিক ওইভাবে কোরিয়ার করতে হবে।

ইউনি এসিস্ট এর ওয়েবসাইটে পেলাম,


যে ডকুমেন্টস এর সারটিফিকেশন (নোটারী টাইপ সত্যায়ন) দরকার হয় না সেগুলো শুধু অনলাইনে আপলোড করলেই চলবে।


যেগুলা কোরিয়ার করতে হবে,

  • আপনার সার্টিফিকেট এবং ট্রান্সক্রিপ্ট এর সারটিফাইড কপি , ল্যাংগুয়েজ সার্টিফিকেটের সারটিফাইড কপি

যেগুলা কোরিয়ার করতে হবে না,

  • internship certificates, a CV, letters of motivation, letters of recommendation, passport copies, etc. এগুলা অনলাইনে আপলোড করলেই চলবে।

কিছু ইউনিভার্সিটি আছে যারা শুধু অনলাইন কপিতেই সন্তুষ্ট হয়ে যায় (এরকম ইউনিভার্সিটি সংখ্যায় কম মে বি) সেক্ষেত্রে আপনাকে সারটীফাইড কপিও পাঠাতে হবে না।


এপ্লিকেশন ফর্ম সাইন করে কোরিয়ার করতে হবে কি না?


  • যদি ফরমের শেষ পেজে সিগনেচারের অপশন থাকে তাহলে নিজের সিগনেচার করে কোরিয়ার করতে হবে। যদি সিগনেচারের অপশন না থাকে তাহলে আর সিগনেচার বা কোরিয়ার কিছুই করতে হবে না। অনলাইন আপলোড করলেই হবে।


অরিজিনাল ডকুমেন্ট কোরিয়ার করব কি না?


  • না না না। ইউনিএসিস্ট কোন ডকুমেন্ট ব্যাক করে না। আর এরা পরে ডকুমেন্ট ডেস্ট্রয় করে ফেলে, কি ভয়ংকর অবস্থা হবে, ভাবুন।


বন্ধুবান্ধবের ডকুমেন্ট একসাথে কোরিয়ার করা যাবে কি না?


  • হ্যাঁ করতে পারবেন।


আরো এরকম প্রশ্নের উত্তর পাবেন, https://www.uni-assist.de/en/faqs/send-track/


নোটারী নিয়ে জানতে চাইলে, https://web.facebook.com/groups/bsfg.pro/permalink/2600460993367190/






Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।