কিভাবে বাংলাদেশে সুন্দরভাবে নোটারী করবেন


যারা জার্মানির ইউনিতে এপ্লাই করবেন, তারা উপকৃত হবেন আশা করি।

আপনারা যখন ইউনি এসিস্টে ডুকুমেন্ট আপলোড+সাবমিট করবেন,তখন অবশ্যই সার্টিফিকেট+ট্রান্সক্রিপ্ট পাঠাবেন।যেখানে ট্রান্সক্রিপ্ট ডিটেইলসে অবশ্যই সার্টিফিকেট উত্তোলনের মিনিমাম পাসিং গ্রেড উল্লেখ থাকতে হবে (1)।না থাকলে ভার্সিটির স্যারদের সাথে যোগাযোগ করবেন।অন্যথায় মিসিং ডুকুমেন্ট দেখাবে ইউনি-এসিস্ট থেকে (2)

যদি নোটারি করতে বলে তাহলে (3) এভাবে নোটারি করতে হবে।যেখানে লাল কালারের পেপারে শাপলাফুলের সিল থাকতে হবে(4) ।আর এভাবে সবগুলো সার্টিকেট+ট্রান্সক্রিপ্ট+ল্যাংগুয়েজ সার্টিফিকেটের সার্টিফাইড কপি একত্র করে স্টেইটমেন্ট সহ সিল দিতে হবে,যাতে প্রত্যেক অংশে সেই সিল থাকে (৫)।






এই পিকটাতে (1) দেখানো হয়েছে ,নোটারি করার সময় এডভোকেটের নাম+পদবী+চেম্বার+মোবাইল নাম্বার+জর্জ কোর্ট/সুপ্রিট কোর্ট ইত্যাদি একত্রে উল্লেখ ছিলনা। ইউনি-এসিস্ট থেকে থেকে জানিয়ে দেয়া হয়েছিল,এটেস্টেড সাফিশিয়েন্ট ছিলনা।এদিকে ভার্সিটির ডেডলাইন চলে যাওয়ার কারণে আর নতুন করে পাঠাতে পারেনি সেই ভাই।সো সাবধান।

নোটারি করার ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।অবশ্যই যার থেকে নোটারি করে নিবেন,তার নাম+পদবী+চেম্বার+মোবাইল নাম্বার+জর্জ কোর্ট/সুপ্রিট কোর্টের,এগুলো স্পষ্ট উল্লেখ থাকতে হবে। এইভাবে করতে হবে (2)






লিখেছেন রবিউল ইসলাম রুবেল



এই লেখা পড়ার পরে কোন প্রশ্ন থাকলে বা মতামত দিতে চাইলে অথবা কাউকে ট্যাগ করতে চাইলে আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ থেকে করতে পারেন

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।