জার্মানিতে আসার জন্য সকল স্কলারশিপের তালিকা (প্রথম পর্ব - দুই পর্বের মধ্যে)




জার্মানিতে আসলে এতই স্কলারশিপের সুযোগ আছে যে, আমরা বাংলাদেশীরা আসলে এখানকার সকল স্কলাশিপের নামই জানি না। তাই আমি আপনাদের সবার সুবিধার জন্য জার্মানিতে যতো স্কলারশিপ আছে, সবগুলো নিয়ে আমি একটা তালিকা করেছি। যারা জার্মানিতে স্কলারশিপ নিয়েই পড়তে চান, তারা যদি অনবরত লেগে থাকেন তাহলে তালিকা থেকে কোন না কোন স্কলারশিপের ব্যবস্থা হয়ে যাবে। আপনারা এই পূর্ণ তালিকা ধরে আবেদন করলেই হবে। একেকটা স্কলারশিপের আবেদনের প্রক্রিয়া বা ডেডলাইন একেক রকম। তাই আপনারা আবেদন করার আগে ভালভাবে লিঙ্কে দেয়া সাইটগুলো ভালভাবে ব্রাউজ করবেন।


১। DAAD স্কলারশিপ। এটি জার্মান সরকারি স্কলারশিপ। মুলত মাস্টার্স, পিএসডি, ডক্টরেট স্টুডেন্ট বা ক্ষেত্র বিশেষে শর্টকোর্স করবার জন্য এই স্কলারশিপ দেয়া হয়। এটা জার্মানির বৃহত্তম স্কলারশিপ। লিঙ্ক https://tinyurl.com/ruoxfac


২। Erasmus Mundus স্কলারশিপ। এটি ইউরোপিয়ান ইউনিওনের অধীনে সর্ববৃহৎ স্কলারশিপ। এটি এককভাবে ইউরোপের কোন দেশ নিয়ন্ত্রণ করে না। এই স্কলারশিপ প্রাপ্তদেরকে সাধারণত একই কোর্স ইউরোপের ২ থেকে ৪ টা ভিন্ন দেশের ভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে মিলিয়ে করতে হয়। এই স্কলারশিপে আবেদন করতে হলে নুন্যতম অনার্স পাশ থাকতে হবে। জার্মানিতে প্রতি বছর প্রচুর স্টুডেন্ট আসে এই স্কলারশিপ নিয়ে। লিঙ্ক https://tinyurl.com/mhuvqj9


৩। Deutschlandstipendium স্কলারশিপ। বাংলাদেশ থেকে যারা ভালো গ্রেড থাকা অবস্থাতেও কোন স্কলারশিপ না পেয়ে জার্মানিতে এসেছেন তারা দেশ থেকে অথবা এখানে আসার পরে এই deutschlandstipendium পেতে আবেদন করতে পারেন। এটা যে কোন সেমিস্টারে আবেদন করা যায়। মাসে ৩০০ ইউরো পাবেন, ১ বা ২ সেমিস্টারের জন্য। এই স্কলারশিপ ইউনিতে ভর্তি হবার পরে ঐ ইউনি থেকে আবেদন করতে হয়। অফিশিয়াল লিঙ্ক https://tinyurl.com/wk93qry


৪। AIESEC: Global Talent Programme এটি মুলত বিজনেস রিলেটেড কোর্সে যারা পড়াশুনা করছেন, তাদের জন্য। এতে মুলত AIESEC স্কলারশিপ স্বরূপ ৪৯০ ইউরো দেয়। জার্মানিতে আসার পরে আপনি তাদের সাথে যোগাযোগ করে আবেদন করতে হয়। অনলাইনে বিস্তারিত জানতে চাইলে লিঙ্ক (জার্মান ভাষায়) https://tinyurl.com/tdace9v


৫। Alexander von Humboldt-Foundation স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপ জারমানির সবচাইতে রয়েল স্কলারশিপ। এটি শুধু মাত্র বিজ্ঞান বিভাগের স্টুডেন্টদের জন্য। কোন কম্পিউটার রিলেটেড, ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যবসা, বা মানবিক শাখার জন্য না। এই স্কলারশিপে আবেদন করতে হলে কমপক্ষে পিউর বিজ্ঞান বিভাগ হতে মাস্টার্স পাশ করতে হবে। (যেমন গনিত, বা পদার্থ বিজ্ঞান)। তবে যারা পিএইচডি বা পোস্টডক বা রিসার্চার হিসেবে কাজ করছেন, তারাই মুলত এই স্কলারশিপ পেয়ে থাকে। তাদের ওয়েবসাইট লিঙ্ক https://tinyurl.com/u9fs7wt


৬। The Baden-Wüttenberg-Stipendium for University Students। এই স্কলারশিপে জার্মানির Baden-Württemberg স্টেটে যারা পড়তে আসে, এমন যে কেউ আবেদন করতে পারবে। এটাই জার্মানির এক মাত্র স্টেট যেখানে প্রতি সেমিস্টারে প্রায় ১৫০০ ইউরো করে টিউশন ফিস আছে। এই স্কলারশিপের জন্য ব্যাচেলর থেকে পোস্টডক পর্যন্ত যে কেউ আবেদন করতে পারে। এই স্কলারশিপে আবেদন করার লিঙ্ক https://tinyurl.com/s9ufz2g


৭। Bayer Science & Education Foundation স্কলারশিপ। এটি বিশ্ববিখ্যাত কোম্পানি Bayer এর পক্ষ্য থেকে শুধু মাত্র যারা ডাক্তার, পাবলিক হেলথ, Life Sciences, Agro Science বা Biology and Chemistry রিলেটেড কোর্সে জার্মানিতে পড়ছেন এবং যারা healthcare সেক্টরে জার্মানিতে ইন্টার্নশিপ করছেন তাদের জন্য। বাংলাদেশীদের মধ্যে প্রায় কেউ এই স্কলারশিপ সম্বন্ধে না জানার কারনে প্রচুর ভারতীয় এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করে থাকে। তাই এবার আমাদেরও বসে না থেকে পাই না পাই আবেদন করা উচিৎ। এই স্কলারশিপে আবেদন করার লিঙ্কসহ বিস্তারিত পাবেন এখানে https://tinyurl.com/regf527

(চলবে - দ্বিতীয় পর্বে সমাপ্ত হবে। সেখানে এমন অনেক স্কলারশিপের নাম এবং সুযোগের কথা তুলে ধরবো যা মুলুত আমরা কেউ জানিনা) আপনি উপকার পেলে আমাদের এই BESSiG গ্রুপে আপনাকে ২০জন মেম্বারকে যোগ করিয়ে দেবার অনুরোধ রইলো। তাহলে চেষ্টাটা ভালো লাগবে।

লেখক Nur Mohammad

এই লেখা পড়ার পরে কোন প্রশ্ন থাকলে বা মতামত দিতে চাইলে অথবা কাউকে ট্যাগ করতে চাইলে

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।