জার্মানিতে পড়াশোনা করতে আসার খরচ কত?



লিখেছেনঃ ইকবাল তুহিন



এই প্রশ্ন অনেকের মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে আমার কত টাকা লাগবে জার্মানিতে পড়াশুনা করতে গেলে। প্রশ্নটা অনেক সহজ হলেও এক কথায় উত্তর দেওয়া বেশ কঠিন! এর অন্যতম কারণ হল:


১। কেউ একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করেছেন এবং সেখান থেকে অফার লেটার পেয়েছেন আবার কেউ ১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করে একটি থেকে অফার লেটার পেয়ে জার্মানিতে এসেছেন।


২। কেউ ইউনি এসিস্ট দিয়ে আবেদন করেছেন আবার কেউ সরাসরি ভার্সিটিতে আবেদন করেছেন। যদি সরাসরি আবেদনের সুযোগ খুব কম।


৩। কারো ইউনি এসিস্ট ফি ও ব্লক একাউন্ট এর টাকা তাদের বিদেশে থাকা আত্মীয় পরিশোধ করতে তাদের ট্রান্সপার ফি দিতে হয়নি ও ইউরোর রেট নিয়ে চিন্তা করতে হয়নি।



৪। কারো ক্ষেত্রে জার্মানিতে থাকা আত্মীয় তাকে স্পন্সর করতে রাজি হয়েছে সেকারণে তাকে ব্লক একাউন্টে টাকা রাখতে হচ্ছেনা


৫। আবার কয়েকটা ভার্সিটি ডকুমেন্ট মূল্যায়ন করতে আলাদা করে টাকা নেয় যেমন: Hochschule Worms


৬। ব্লক একাউন্ট এর টাকা সরাসরি কোন খরচ না কারণ এটি প্রতি মাসে আবার ফেরত পাওয়া যায়।আপনি পার্টটাইম জব পাবার পর ওই টাকা আর খরচ করা লাগবেনা যদি আপনার যথেষ্ট ইনকাম থাকে।


৬। এরপর আছে ইউরো রেট উঠানামা।


আসুন এত কিছুর পরও ১০০ টাকা ইউরোর রেট ধরে আর ৫ টি কোর্স আবেদন করবেন এটা মাথায় রেখে একটা সম্ভব খরচ বের করার চেষ্টা করি!


আবেদন খরচঃ ৫ টি আবেদনই ইউনি এসিস্ট দিয়ে করবেন ধরে নিলাম সেক্ষেত্রে খরচ প্রথম আবেদনে ৭৫ ইউরো, এর পরে সব গুলোর জন্য ৩০ ইউরো করে। সেক্ষত্রে সর্বমোট পড়বে ১৯৫ ইউরো। ট্রানফার খরচ সহ ২০০ ইউরো ধরে নিলাম। যেটা ১০০ টাকা ইউরো রেট ধরে ২০০০০ টাকা।


সত্যায়িতঃ যেহেতু জার্মান এম্বাসি কোন টাকা পয়সা ছাড়া সত্যায়িত করে দেয় তাই কোন খরচ নাই। এছাড়া আপনি যদি নোটারী করে টাকা খসান এটা আপনার সমস্যা!


ডকুমেন্ট পাঠানোর খরচঃ ডকুমেন্ট পাঠাতে ১০০০ থেকে ২৫০০ পর্যন্ত খরচ হতে পারে। আমরা ২৫০০ কে স্ট্যান্ডার্ড ধরবো।


স্টুডেন্ট ফাইলঃ ধরে নিলাম আপনি যেকোন ভার্সিটি থেকে অফার লেটার পেলেন এবং আপনার কোন আশয় নেই যে বিদেশে আপনার হয়ে ব্লকের টাকা দিবে। তাহলে পরবর্তী আর্থিক লেনদেন করার জন্য আপনাকে বাংলাদেশের কোন ব্যাংকে স্টুডেন্ট ফাইল খুলতে হবে। স্টুডেন্ট ফাইলের খরচ ৫০০০ টাকা থেকে ১৫০০০ টাকার মধ্যে। আমরা ১৫০০০ টাকা ধরে নিলাম।


ব্লক একাউন্টঃ ১০২৩৬ ইউরো ব্লক করতে হবে বর্তমান নিয়ম অনুসারে যেটা যেকোন সময় পরিবর্তন হতে পারে। ব্লক একাউন্ট করতে আপনাকে জার্মান ব্যাংকে ফি দিতে হবে ৯৯ ইউরো থেকে ২০০ ইউরো। নির্ভর করে আপনি কাদের মাধ্যমে করছেন। আমরা এখানে ২০০ ইউরো ধরে নিলাম। ১০০ টাকা রেটে যা হয় ২০০০০ টাকা।


**ব্লক একাউন্ট এর টাকা সরাসরি কোন খরচ না কারণ এটি প্রতি মাসে আবার ফেরত পাওয়া যায়। আপনি পার্টটাইম জব পাবার পর ওই টাকা আর খরচ করা লাগবেনা যদি আপনার যথেষ্ট ইনকাম থাকে। ১০০ টাকা রেটে ১০২৩৬ ইউরো/১০২৩৬০০ টাকা ব্লক একাউন্টে রাখতে হবে। যা প্রতি মাসে ৮৫৩ ইউরো করে পাওয়া যাবে।


ট্রাভেল ইন্সুরেন্সঃ ট্রাভেল ইন্সুরেন্স খরচ ৫০০০ টাকা থেকে ১০০০০ টাকার মধ্যে। ধরে নিলাম ১০০০০ টাকা।

আনুষাঙ্গিক খরচঃ ফটোকপি করা, এম্বাসির জন্য ছবি তোলা ইত্যাদি বাবদ ১০০০ টাকা ধরে নিলাম।


এম্বাসি ফিঃ ৭৫ ইউরো যা বাংলাদেশী টাকায় কম-বেশি ৭৫০০ টাকা।


বিমান ভাড়াঃ আশা করি আপনি ভিসা পেয়ে গেলেন, এবার উড়াল দেওয়ার পালা। জার্মানিতে একমুখী বিমান যাত্রার খরচ ৪০০০০ টাকা থেকে ৬০০০০ হাজার টাকা সাধারণত। আমরা ৬০০০০ টাকা ই ধরলাম।


মোট খরচ(ব্লক একাউন্ট হিসাবে না ধরে বিশুদ্ধ খরচ)= ২০০০০+২৫০০+১৫০০০+ ২০০০০+১০০০০+১০০০+৭৫০০+৬০০০০= ১৩৬০০০ টাকা

ব্লক একাউন্টের টাকা সহঃ ১৩৬০০০+১০২৩৬০০ = ১১৫৯৬০০ টাকা।

ধরে নিলাম প্রথম ৬ মাস খুব ভালো ভাবে জার্মান শিখলেন পড়াশুনার পাশাপাশি এবং আপনি ৬ মাস পরে জব পেলেন যা দিয়ে আপনি নিজে চলতে পারবেন। তাহলে আপনার ব্লকের ৬ মাসের টাকা বেঁচে গেল, তাহলে আপনার খরচঃ ১৩৬০০০+৫১১৮০০ = ৬৪৭৮০০ টাকা।


*** ইউরো মূল্যমানের পরিবর্তনের ফলে খরচ কম-বেশি হতে পারে!


***যে কোন ফি পরিবর্তনশীল আর ব্যক্তির উপর নির্ভর করে খরচ কমবেশি হতে পারে। এটা একটা ধারণা দেওয়া চেষ্টা মাত্র!


©️এই লেখার মেধাস্বত্ব শুধুমাত্র লেখকের এর জন্য সংরক্ষিত।



Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।