বিশ্ববিখ্যাত স্কুলের এডুকেশন রেঙ্কিং PISA রেঙ্কিং এ জার্মানির অবস্থান




বিশ্ববিখ্যাত PISA রেঙ্কিং (Programme for International Student Assessment) প্রতি তিন বছরে একবার করা হয়। এই রেঙ্কিং করতে প্রায় দেড় বছর সময় লাগে, যা ২০১৮ সালে শুরু হয়েছিলো, ২০১৯ সালের শেষে এসে রেসাল্ট প্রকাশিত হয়ছে। এবার বিশ্বের ৭৯ দেশের মাঝে (বাংলাদেশ নেই) ৬ লক্ষ বাছাইকৃত স্কুলের স্টুডেন্টদের মধ্য থেকে পরীক্ষা নিয়ে করা হয়েছে (যাদের বয়স সর্বোচ্চ ১৫ বছর)। স্কুল এডুকেশনের মান বুঝার জন্য


PISA রেঙ্কিংকে বিশ্বের সবচাইতে সেরা রেঙ্কিং ধরা হয়। এই রেঙ্কিং অনুযায়ী গত অনেক বছর ধরে ইউরোপের সেরা স্কুল সিস্টেম ফিনল্যান্ডকেই ধরা হতো। কিন্তু গত সপ্তাহে প্রকাশ হওয়া সদ্য রেঙ্কিং এ Estonia স্কুল এডুকেশনে ইউরোপ এর সেরা দেশ আর সারা বিশ্বে তৃতীয় হয়েছে। আর ফিনল্যান্ড ইউরোপের মধ্যে দ্বিতীয় আর সারা বিশ্বে সপ্তম হয়েছে। জার্মানির অবস্থা আগের চাইতে অনেক অবনতি হয়েছে। জার্মানির স্কুল এডুকেশন সিস্টেম ইউরোপের মধ্যে ১১ তম আর বিশ্বে ১৬ তম। PISA টেস্টের পরীক্ষা আলাদা করে তিনটা বিভাগে করা হয় Reading, Mathematics, Science। জার্মানির রেঙ্কিং এর অবস্থা আরও খারাপ হতো যদি Science এ ১৬তম না হতো। কারন Reading এবং Mathematics দুই বিভাগে জার্মান স্টুডেন্টদের অবস্থা ২০ তম। PISA টেস্ট অনুযায়ী জার্মান স্কুলের স্টুডেন্টরা কোন রকমে এভারেজ থেকে একটু ভালো করেছে।


আপনারাও পুরো রেঙ্কিং এর ডিটেলস দেখে নিতে পারেন। পুরো PISA রেঙ্কিং এর রিপোর্ট পাবেন এই লিঙ্কে http://tiny.cc/10dahz

লেটেস্ট বিবিসির খবর http://tiny.cc/8keahz







লেখা ও ছবির সূত্র PISA রেঙ্কিং এর অফিশিয়াল রিপোর্ট এবং উইকিপেডিয়া। আপনি উপকার পেলে আমাদের এই BESSiG গ্রুপে আপনাকে ২০জন মেম্বারকে যোগ করিয়ে দেবার অনুরোধ রইলো। তাহলে চেষ্টাটা ভালো লাগবে।

লেখক Nur Mohammad


এই লেখা পড়ার পরে কোন প্রশ্ন থাকলে বা মতামত দিতে চাইলে অথবা কাউকে ট্যাগ করতে চাইলে

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।