বিশ্ববিদ্যালয় পরিচিতিঃ Hochschule Bonn-Rhein-Sieg

১৯৯০ সালে পূর্ব ও পশ্চিম জার্মানি পুনরায় একত্রিত হওয়ার পরে বার্লিনকে সংযুক্ত জার্মানির নতুন রাজধানী হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছিল। এর ফলে বন পশ্চিম জার্মানির রাজধানী হিসাবে তার মর্যাদা হারিয়েছিল এবং বেশিরভাগ সরকারী অফিস বার্লিনে চলে গিয়েছিল। এই পদমর্যাদা এবং অর্থনৈতিক ক্ষতির জন্য বনকে বিভিন্ন উপায়ে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য ১৯৯৪ সালে একটি চুক্তি করা হয়েছিল। এই চুক্তির অংশ হিসেবে ১লা জানুয়ারি ১৯৯৫ সালে North Rhine-Westphalia রাজ্যের সরকার বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করে। এর মিশন ছিল এই অঞ্চলে কাঠামোগত পরিবর্তনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া; নতুন শিক্ষাগত সুযোগ প্রদান; ব্যবহারিক প্রকল্প এবং শিল্পের সাথে সহযোগিতার মাধ্যমে অর্থনৈতিক কাঠামোগত বিকাশে অবদান রাখা।

১৫০ জন অধ্যাপক ও ৩৩০ জন রিসার্চ এসোসিয়েট ও প্রায় ১০০০ স্টাফ মেম্বার দ্বারা বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিচালিত হচ্ছে যেখানে প্রায় ৯২৫০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত আছে। প্রতিবছরে প্রায় সাড়ে চার লক্ষ দর্শনার্থী বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিদর্শনে আসে। বিশ্ববিদ্যালয়টির আছে নিজস্ব বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র যা থেকে প্রতি বছর ৬ হাজার কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে থাকে।

যে বিষয়গুলোর উপর ইংরেজিতে অনার্স -মাস্টার্স করতে পারবেন-

Autonomous Systems (MSc)

International Media Studies (MA)

CSR & NGO Management (MBA)

International Business (BSc)

Marketing (MSc)

Applied Biology (BSc)

Forensic Sciences (BSc)

Biomedical Sciences (MSc)

Materials Science and Sustainability Methods (MSc)

Analysis and Design of Social Protection Systems (MA)

©️জামান।। উপযুক্ত ক্রেডিট সহকারে (লেখকের নাম এবং BESSiG গ্রুপের নাম উল্ল্যেখ করে) শেয়ার করা যাবে।


Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।