হামীম প্রান্ত - ভিসা ইন্টারভিউ এক্সপেরিয়েন্স


লিখেছেন হামীম প্রান্ত


আসলে এইরকম একটা পোষ্ট দেওয়ার ইচ্ছাছিলো আরো ২ বছর আগে থেকে।কারন অনেকদিন যাবত এমন পোষ্ট দেখতাম আর ভাবতাম আমার দিন কবে আসবে।যদিও ভিসা পাওয়ার পর সব মিলে পোষ্ট দিলেই মনে হয় ভালো হত🤔যাকগে ভিসা পাবো কিনা কে জানে তাই আগেই দিচ্ছি😁 আজ অর্থাৎ ০৮.০১.২০২০ তারিখ সকাল ১০.৩০ মিনিটে আমার ভিসা ইন্টারভিউ ছিলো যেটা আমি জানতে পেরেছিলাম গত পরশুদিন।অর্থাৎ আমি এপয়েনমেন্ট স্লট পেয়েছি ০৬.০১.২০২০ এই তারিখে।ব্লকের টাকা সেদিনই পাঠিয়েছিলাম পরেরদিনই ব্লক কনফার্মেশন পেয়েছিলাম। বাকিছিলো বাসা সেটাও এখানে পোষ্ট দিয়ে শিওর হয়ে গতকাল হোটেল বুকিং দিয়ে কনফার্মেশন পেয়ে প্রিন্ট আউট করে সাথে নিয়ে গিয়েছিলাম(যদিও এই বিষয়ে কিছুই জিজ্ঞেস করেনি তাই নিজ থেকে আর কিছু বলিনি)।আর এম্বাসির ইন্টারভিউয়ের জন্য হালকা প্রিপারেশন নিয়েছি গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে অর্থাৎ আমার সকল পেপার প্রিন্ট+রেডিসহ সব কাজ করতে করতেই গতকাল সন্ধ্যা😣এখন আসল কথায় আসি-

যেহেতু সকাল ১০.৩০ মিনিটে ইন্টারভিউ ছিলো তাই আমি বেশ আগেই রওনা হয়েছিলাম কারন যেহেতু এখনো জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে থাকি তাই এখান থেকে এম্বাসি অনেক দূর। তাই ৮ টার দিকেই আমি পৌছিয়ে গিয়েছিলাম।পরে মেইনরোড ক্রস করে একটা হোটেলে নাস্তা করে ওখানেই কিছুক্ষন বসে অপেক্ষা করেছি যেহেতু এম্বাসির সামনে কোন বসার জায়গা নাই। পরে ৯ টার সময় গেলাম এম্বাসির সামনে। ৯ টা ৩০ মিনিটে পাসপোর্ট জমা নিলো।আমাকে ভেতরে ডাকলো ঠিক ১০ টায়। ভেতরে যাওয়ার পর চেকিং শেষে পাঠিয়ে দিলো ভেতরে। ভেতরে গেলাম যাওয়ার পর কাগজ সিরিয়াল করে সাজানোর জন্য বলা হলো আমি আগেই সিরিয়াল অনুযায়ী সাজিয়ে নিয়ে গিয়েছিলাম তাই যাষ্ট মিলিয়ে নিয়েছি। পরে তাকে বললাম সাজানো শেষ। অবাক করার বিষয় হলো ডকুমেন্টস সাজানোর সাথে সাথেই সে আমাকে বললো ৬ নাম্বার কাউন্টার দেখিয়ে ওই কাউন্টারে যান।পরে সব কাগজ হাতে নিয়ে গেলাম(আমাকে নাম ধরে ডাকা হয়নি ভেতর থেকে🤔)।গিয়ে দেখি একজন মধ্য বয়স্ক ভদ্র মহিলা।শুরু হয়ে গেলো ভাইভা-

Me- Good morning mam VO- Good morning

VO- Give me all documents Me- here you go

VO- Your bachelor subject? Me- Public Administration.

VO- Intended course? Me- International Tourism Development

VO- University? Me- Deggendorf Institute Of Technology

VO- What's the relation between two subject? Me- told

VO- Why International Tourism Development? Me- told

VO- Why Germany? Me- told

VO- HSC Year? Me- Told

VO- Result? Me- Told

VO- Bachelor year? Me- Told

VO- Bachelor Result? Me- Told

VO- IELTS result? Me- Told

VO- How many credit do you have in your Master’s? Me- Told

VO- Did you join in any job after completing your Bachelor? Me- No. I'm a fresh graduate.

VO- Did you apply any other universities? Me- Yes. I've applied 6 more universities bt They’ve not published result yet.

VO- Give your finger print. Me- ৬/৭ মিনিট লাগছে শুধু ফিংগার প্রিন্ট নিতে কারন আমার হাত ঘামার কারনে হচ্ছিলোনা।অনেকবার চেষ্টার পর হইছে😁

VO- Give me 7000tk. Me- 7000tk???🤔🤔🤔 VO-Yes

VO- Wait 4-6 weeks. Me- Ok mam Thank you VO- Welcome

এই অল্প কয়েকটা প্রশ্ন হলেও আমার পুরো ভাইভা নিতে প্রায় ২৫ মিনিটের মত লেগেছে।কারন ম্যাম একটা করে প্রশ্ন করছিলো পাশাপাশি কম্পিউটারে কাজ করছিলো আবার কিছুক্ষন পর আবার আরেকটা প্রশ্ন করেছে। এককথায় রিল্যাক্সে ভাইভা দিসি😊প্রথম দিকে একটু ভয় লাগলেও পরে কিছুই মনে হয়নাই বেশ ইজি ছিলো। সব প্রশ্নের উত্তর দিতে পেরেছি। এখন শুধুই অপেক্ষা। জানিনা ভিসা হবে কিনা, তবে অনেকেই কালকে আমার পোষ্ট দেওয়ার পর থেকে নক দিয়ে জানতে চাচ্ছেন ভিসা এক্সপেরিয়েন্স। তাই পোষ্টটা দেওয়া। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।


এই লেখা পড়ার পরে কোন প্রশ্ন থাকলে বা মতামত দিতে চাইলে অথবা কাউকে ট্যাগ করতে চাইলে আমাদের ফেইসবুক গ্রুপ থেকে করতে পারেন

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।