গোটিঙ্গেনের রুটির জাদুঘর!!!



পৃথিবীর কত দেশে কত রকম জাদুঘর রয়েছে তার মধ্যে আছে আবার কিছু ব্যতিক্রম জাদুঘর। এমন একটি জাদুঘর হলো পাউরুটি জাদুঘ😁। হা ঠিকই শুনছেন এটি পাউরুটি জাদুঘর। সভ্যতার একটি অপরিহার্য ভিত্তি হিসেবে রুটির প্রায় ৬০০০ বছরের ইতিহাস রয়েছে। পাউরুটির ইতিহাস ও প্রভাব নিয়ে জার্মানীর গটিংগ্যান শহরে এটি অবস্থিত। আমার বর্তমান অবস্থান এই ছোট্ট ছিমছাম শহরে। গত উইন্টারে আসার পর থেকে এ শহরের আসে পাশে খুঁজতাম বেড়াতে যাওয়ার জাযগাগুলো🙂। হঠাৎ গুগল আমাকে সন্ধান দেয় আর আমিও রওনা হই😁।


এটি গটিংগ্যান শহরথেকে একটু দূরে তবে শহর থেকে অনেকগুলো বাস রয়েছে জাদুঘর এ যাওয়ার জন্য। ১৯৭১ সাল থেকে এটি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। এখানে রয়েছে শত রকমের পাউরুটি আর শত রকমের গম আর যব যা বহু বছরের পুরানো যা অন্যান্য দেশ থেকে সংগ্রহকৃত। এখানে রয়েছে ১৯১০ সালের ফসিল আকৃতির পাউরুটি এবং ১৯৩৮ সালে পউরুটি🙂(ছবিতে যুক্ত করা আছে) আরো ও আছে হাজার বছরের পুরাতন টিউবওয়েল, গরুর গাড়ির মত যানবাহন, মাটির চুলা ১৮৬০ সালের এবং এদেশের পাউরুটির সাথে যুক্ত অনেক পৌরাণিক জিনিস পত্র। এবং এখানে সারাদিন এর জন্য অবস্থান করতে চাইলে আপনাকে তারা হাজার রকমের গরম গরম পাউরুটি দিয়ে ব্রেকফাস্ট, লান্চ,ডিনার ও করাতে পারবে।

গটিংগ্যান এ আসলে পাউরুটি জাদুঘর বেড়াতে ভুলবেন না।☺☺


লিখেছেন: পল্লবী নাহার


Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।