জার্মান স্ট্রবেরি



স্ট্রবেরি চাষ করতে খড় (স্ট্র) একটা গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। কিন্তু এই জন্যই কিন্তু এর নাম স্ট্রবেরি না। ধারনা করা হয়, যেহেতু স্ট্রবেরি ফল মাটির উপর শায়িত অবস্থায় থাকে, এই জন্যই "strewn berry" থেকে বিকৃত হয়ে এর নাম হয়েছ “strawberry”। গ্রীক ভালোবাসার দেবী, আবেদনময়ী সুন্দরী ভেনাস এর প্রতীক এই স্ট্রবেরি । ফলটা কিছুটা হার্ট আকৃতি এবং রক্ত রং হবার জন্যই এই প্রতিকীকরন।


এই ফলটার সাথে পরিচয় ২০১১ সালে বাকৃবিতে পড়বার সময়। প্রফেসর উজ্জল নাথ এর গবেষণা ছিল স্ট্রবেরি নিয়ে। খাওয়ার সুযোগ হলেও টক থাকার কারনে খুব বেশি খাওয়া হয় নি। জার্মানীতে এসে স্ট্রবেরি খাওয়ার পর ধারনা বদলে গিয়েছিল। অসাধারন মিস্টি আর প্রচুর ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল এটি। এরা মজাদার কেইক বানাতেও ব্যবহার করে স্ট্রবেরি। আর করোনার বদৌলতে আমরা এখন কম বেশি জানি যে, শরীরের ইমুউনিটি বুস্ট করতে কতটা প্রয়োজন এই ভিটামিন সি।

আমাদের দেশের কৃষির সাথে এদের কৃষির একটা মৌলিক পার্থক্য, এদের কাছে কৃষি একটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা। এখানকার কৃষকরা বেশ ধনী, শত হেক্টর জমির মালিক তারা। এবং বেশিরভাগ কৃষকের আঙিনাতেই ছোট খাট ফ্যক্টরী থাকে, যেখান থেকে তারা ফসল প্রক্রিয়াজাত কিংবা খুচরা বিক্রি করে। কেউ কেউ তো একধাপ এগিয়ে জমিতেই পর্যটন শিল্প গড়ে তোলে। সেখানে যত খুশি খাওয়া যায়, যা নিয়ে যাবেন; কেবল তার দাম দিতে হবে। গত সপ্তাহে বেশ সিস্টেম করে ছুটি ম্যানেজ করে বেড়াতে গিয়েছিলাম তেমনই একটি স্ট্রবেরি (Frenzenstrasse 122, 50374 Erftstadt) ক্ষেতে। অবশ্য বন্ধু হাবিবি-বৃষ্টি আর আজিম ভাই- অরিন দের গাড়ি না হলে যাওয়ার সুযােগ হত না। এই দেশে নিজের গাড়ি থাকলে, জীবন যে কত মধুর!

জমিতে নিজ হাতে স্ট্রবেরি তুলে ইচ্ছে মত স্ট্রবেরি খাওয়ার পর, ফেরার সময় যা ছিল, মেপে ৪ ইউরো করে প্রতি কেজি দাম দিতে হল। তবে গাছের পাকা স্ট্রবেরি সত্যিই অসাধারন, বাজার থেকে কেনাটা এত মজা হয় না। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হল আমি হঠাত একটা স্ট্রবেরি পেলাম, যেটা আমাদের হাতে আঁকা লাভ চিহ্ন এর মত!!!


স্ট্রবেরি বাগানের ওয়েবসাইট: http://www.schumachers-hofladen.de/

লিখেছেনঃ মোহাম্মদ সাহেদুল আলম

Subscribe to Our Newsletter

© BESSiG. বিনা অনুমতিতে এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অন্য যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্যবসায়িক কার্যক্রমে ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।